1. mdrahim191420@gmail.com : Tazu Miazi : Tazu Miazi
  2. admin@www.bangladeshbartabd.com : Bangladeshbarta :
গণ ধর্ষণকারীদের বিচার না পেলে থানায় গিয়ে বিষপানে আত্বহতা করব-ভিকটিম বিধবা নারী ভিক্ষুক - Bangladesh Barta
মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর ২০২১, ০৫:৫৩ অপরাহ্ন

গণ ধর্ষণকারীদের বিচার না পেলে থানায় গিয়ে বিষপানে আত্বহতা করব-ভিকটিম বিধবা নারী ভিক্ষুক

বাংলাদেশ বার্তা ডেক্স
  • প্রকাশিত: সোমবার, ৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ৩১ বার পড়া হয়েছে

নৃ-তাত্বিক জনগোষ্ঠী ( হাজং) গৃহবধু, অটো চালকের স্ত্রী ধর্ষণ, গৃহবধূকে ধরএষল পর হত্যা, হিন্দু কিশোরীকে ধর্ষণ, কালবার্টের নিচে প্রতিবন্দি কিশোরীকে ধর্ষণ, নব বধূকে স্বামীর সামনে অপরহরণ চেষ্টা, মাদক চোরাচালান, হত্যা, যৌণ হয়রানী, সংঘর্ষ, নৌ পথে চাঁদাবাজি সহ নানা অপরাধ মূলক কর্মকান্ড সুনামগঞ্জের তাহিরপুর থানা এলাকায় ঘটেই যাচ্ছে। একটি ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতেই  ফের সুনামগঞ্জের তাহিরপুর থানা এলাকায় ভিক্ষুক বিধবা নারী ধর্ষণের ঘটনায় সচেতন মহলকে জানান দিয়েছে হয়ত, এ থানা এলাকার আইন শৃংখলা পরিস্থিতি কতটুকু ভালো আছে? অপরাধীদের লাগাম টেনে ধরা যাচ্ছে না কেন? বার বার ধর্ষণের ঘটনা গুলো কি ম্যাসেজ দিচ্ছে ভবিষ্যত প্রজন্মকে?।

আসুন এবার সবাই ঐক্যবধ্য ভাবে ধর্ষণের মত ঘৃণ্য অপরাধ প্রতিরোধে সোচ্চার হই, প্রতিবাদী হই।

এ বিধবা নারী ভিক্ষূক কারো না কারো মা, বোন, মেয়ে হতে পারত, অসহায় বলেই কি তার ন্যায় বিচারের দাবিতে সুশীলরা দাড়াবেন না? তার পক্ষ্যে বিচারের দাবিতে মানব বন্ধন , সমাবেশ করাটা কি অন্যায় হবে। দেশের নারী মঞ্চ, মহিলা পরিষদ, মানবাধিকার সংগঠনগুলো, সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠনগুলো এ অসহায়ের পাশে দাড়ালে ক্ষতি কি?  কিন্তু কেন নয়? তাহিরপুর থানায় এলাকায় প্রকৃত ঘটনা আড়াল করতে অভিযোগের আগেই অভিযুক্তকে আটকের পর মামলা নিয়ে গণমাধ্যমকে এড়িয়ে আদালতে পাঠানো হয় আসামিকে। প্রকৃত ঘটনা ভিকটিমকে বা গণমাধ্যমকেও জানতে দেওয়া হয়না কোন কোন ক্ষেত্রে। এসব করে আসামী গ্রেফতার করে নিজেকে সফল মনে করাটা সহজ কিন্তু অপরাধ প্রবণতা কমিয়ে আনা বা অপরাধীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি প্রাপ্তির বিষয়টি থেকে যাচ্ছে অনিশ্চিত। থানার ওসি  মো. আব্দুল লতিফ তরফদার এ সব চাঞ্চলকর ঘটনা সম্পর্কে উনার নিকট  জানতে গেলেই সোজা বলেন , পরে কথা বলব, সময় ক্ষেপন করতে থাকেন। ভোক্তভোগী বা ভিকটিমের অভিযোগ লিখিয়ে নেন নিজের মত করে। বেশ কয়েকটি ঘটনায় দেখা গেছে ভোক্তভোগী বা ভিকটিম যাদের অভিযুক্ত করতে চান তারা প্রভাবশারী হলে এজারে তাদের নামই থাকছে কেন। শুধু তাই নয় তিনি গণমাধ্যমকে কেন এড়িয়ে চলেন এটি উনার বিষয়। কিন্তু গণমাধ্যম দায়িত্ব এড়াতে পারেনা।

 এ ভিক্খুক বিধবা মহিলার টাকা পয়সা নেই। কোথায় পাবেন আইনজীবি। কিভাবে চলবে তার ও তার শিশু সন্তানের ভরন পোষণ । কিন্তু এরাও মানুষ, এদের কথাও শুনতে হবে,  এদের দাবি আছে, এদের কাছে যেতে হবে,এদের মত অসহায় মানুষদের পাশেও দাড়াতে হবে। এদের খবর গুলো ফেলে দিলে হয় কি? এদের ভবর গুরুত্ব পায়না কেন প্রথম সারির জাতীয় দৈনিক, বা বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল গুলোতে। গরীব অসহায় ভিক্ষুক বিধবার পাশে কি আমরা দাড়াতে পারিনা।

সংবাদটি শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন,

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত  দৈনিক বাংলাদেশ বার্তা  ২০২০-২১
এই ওয়েবসাইটের লেখা, ছবি, ভিডিও ব্যবহার বেআইনি

ওয়েবসাইট ডিজাইন প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট