1. manwarhossain570@gmail.com : Manwar Hossain : Manwar Hossain
  2. kazimasud01723@gmail.com : বাংলাদেশ বার্তা বিডি : বাংলাদেশ বার্তা বিডি
  3. marahimbablu@gmail.com : Rahim :
শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ১০:৫১ অপরাহ্ন
সর্বশেষ :
কুরবানি বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিল চেয়ারম্যানের সাথে চট্টগ্রাম রিপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের শুভেচ্ছা বিনিময় চৌদ্দগ্রামে সাজা ও ওয়ারেন্টভুক্ত ৬ আসামী আটক নাঙ্গলকোটে যায়যায়দিন পত্রিকার প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত। সময়ের দর্পণ পত্রিকা সম্পাদক শোয়ায়েব এর মৃত্যু, নাঙ্গলকোট প্রেসক্লাব সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের শোক নাঙ্গলকোটে অটোরিক্সা চালক হত্যা ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন কুমিল্লায় শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের ৪৩তম শাহাদত বার্ষিকী পালিত দুপুরের মধ্যেই কুমিল্লা সহ ১১ জেলায় তীব্র ঝড়ের শঙ্কা ময়মনসিংহের চরকালিবাড়িতে আলতাব হত্যাকান্ডের মুলহোতা রাসেল অস্ত্রসহ গ্রেফতার ইউএনও”র সাথে নাঙ্গলকোট প্রেসক্লাবের সাংবাদিকদের মতবিনিময়

নাঙ্গলকোটে অটোরিক্সা চালক হত্যা ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন

বাংলাদেশ বার্তা বিডি ডেক্স
  • প্রকাশিত: রবিবার, ২ জুন, ২০২৪
  • ৮ বার পড়া হয়েছে

কুমিল্লার নাঙ্গলকোটের মৌকরা ইউনিয়নের চাঁন্দগড়া গ্রামের আলী আকবরের ছেলে দরিদ্র অটোরিক্সা চালক আবু হানিফ হত্যাকারীদের আইনের আওতায় এনে ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী। গতকাল রোববার নাঙ্গলকোটÑঢালুয়া সড়কের মিয়াবাজার এলাকায় এ মানববন্ধন কর্মসূচী পালিত হয়। এসময় মানববন্ধনে এলাকাবাসী হানিফ হত্যার সাথে জড়িতদের ফাঁসির দাবিতে সম্বলিত ব্যানার, প্লেকার্ড ও পেস্টুন প্রদর্শন করেন।

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, স্থানীয় ইউপি সদস্য ছালেহ আহম্মদ, হাজী আবুল কাশেম, চাঁন মিয়া সরকার, আব্দুর রশিদ, মহিন খাঁন, শাহ আলম, কামাল হোসেন, আবদুল মোতালেব, আবদুর রশিদ, মো. বেলাল, নুরজাহান বেগম, শারমিন আক্তার প্রমুখ।
বক্তারা বলেন, মৌকরা ইউনিয়নের হাসানপুর গ্রামের আবদুল গফুরের ছেলে সুমন অটোরিক্সা চালক আবু হানিফকে ভাড়ার কথা বলে মুঠো ফোনে ডেকে নেন। অথচ লাকসাম থানা পুলিশ রহস্যজনকভাবে সুমনকে মামলার আসামী থেকে বাদ দেয়। তারা সুমনকে গ্রেফতার করে এলাকার অন্য কেউ আবু হানিফ হত্যার সাথে জড়িত থাকলে তাদেরকেও গ্রেফতার পূর্বক আইনের আওতায় এনে ফাঁসির দাবী জানান।
জানা যায়, গত ২৫মে সকালে নাঙ্গলকোটের মৌকরা ইউনিয়নের হাসানপুর গ্রামের আবদুল গফুরের ছেলে সুমন মুঠোফোনে ভাড়ার কথা বলে আবু হানিফকে বাড়ি থেকে ডেকে নেন। ওইদিন দুপুরে লাকসাম থানা পুলিশ খবর পেয়ে লাকসামের গোবিন্দপুর ইউনিয়নের মোহাম্মদপুর গ্রামের মালেক মেম্বারের বাড়ি থেকে আবু হানিফকে মাথায় রক্তাক্ত জখম এবং গলা কাটা গোঙ্গানো অবস্থায় উদ্ধার করে লাকসাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। পরে হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে। পরে পুলিশ তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় মুঠোফোনের কল লিস্টের সূত্র ধরে অভিযান চালিয়ে নাঙ্গলকোটের হাসানপুর গ্রামের আবদুল গফুরের ছেলে সুমনকে আটক করে। সুমনের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী ২৫ মে রাতে হানিফ হত্যার সাথে জড়িত ঘাতক মনির হোসেনকেও আটক করে পুলিশ। মনির লাকসাম উপজেলার উত্তরদা ইউনিয়নের ঠেঙ্গারপাড় গ্রামের আবদুল মতিনের ছেলে। সে তার নানার বাড়ী লাকসামের গোবিন্দপুর ইউপির মোহাম্মদপুর গ্রামের মালেক মেম্বারের ওই বাড়িতে বসবাস করতেন। এঘটনায় আবু হানিফের স্ত্রী শারমিন আক্তার মনিরসহ তিনজনকে আসামী করে লাকসাম থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।
অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (লাকসাম সার্কেল) সোমেন বলেন, মামলাটির তদন্ত প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে। এ হত্যাকান্ডের সাথে অন্য কেউ জড়িত থাকলে তাদেরকেও আইনের আওতায় আনা হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট