1. bmsfnkot@gmail.com : Saiful :
  2. mdrahim191420@gmail.com : Tazu Miazi : Tazu Miazi
  3. admin@www.bangladeshbartabd.com : Bangladeshbarta :
নাঙ্গলকোটে ভাতিজার ছুরির আঘাতে চাচা’সহ আহত-৩ - Bangladesh Barta
শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১, ১১:০৭ অপরাহ্ন

নাঙ্গলকোটে ভাতিজার ছুরির আঘাতে চাচা’সহ আহত-৩

মো: আহাম্মদ উল্লাহ ভুইয়া, নাঙ্গলকোট প্রতিনিধি :-
  • প্রকাশিত: সোমবার, ২৬ জুলাই, ২০২১
  • ৭৮ বার পড়া হয়েছে

 

কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে অসহায় ভাতিজা আব্দুর রহিম মোল্লার প্রাণ বাঁচাতে গিয়ে অপর ভাতিজাদের ছুরিকাঘাত ও সন্ত্রাসী হামলায় গুরুতর আহত হয়েছে চাচা হায়াতুন্নবী মোল্লা (৪৫), ফুফু পান্না বেগম (৪৮) ও আব্দুর রহিম মোল্লা (২২)। এসময় বাড়ীঘর ভাংচুরের ঘটনা ঘটে। রবিবার রাতে রায়কোট গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। হায়াতুন্নবীকে প্রথমে নাঙ্গলকোট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে অবস্থার অবনতি হলে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার রায়কোট গ্রামের বজলের রহমান মোল্লার ছেলে নুরুন্নবী মোল্লা দু’টি বিবাহ করেন। তার প্রথম স্ত্রী’র সংসারে আব্দুর রহিম মোল্লা নামে এক ছেলে রয়েছে। গত ৩ বছর পূর্বে নুরুন্নবী তার ছেলেকে ঘর দেয়ার জন্য স্থান নির্ধারণ করে দেয়। আব্দুর রহিম তার বাবার দেয়া স্থানে ঘরে নির্মাণ করে স্ত্রী ও শিশু সন্তান’সহ বসবাস করে আসছে। গত শনিবার আব্দুর রহিম তার ঘরের পাশে টিউবওয়েল স্থাপন করে ওই স্থানটি পাকা করতে চাইলে তার জেঠা মাহবুবুল হক মোল্লা জমিটি তার দাবী করে বাধা প্রদান করে। এ নিয়ে কথা কাটাকাটির জেরে রবিবার রাতে মাহবুবুল হক, তার ছেলে মোবারক, রাসেল, ইমদাদুল হক, স্ত্রী সাজেদা ও মেয়ে রুমা আব্দুর রহিমের উপর ধারালো অস্ত্রশস্ত্র ও লাঠিসোঠা দিয়ে হামলা করে। আব্দুর রহিমের আত্মচিৎকারে তার চাচা হায়াতুন্নবী মোল্লা ও বেড়াতে আসা ফুফু পান্না বেগম এগিয়ে গেলে তাদের উপর হামলা চালায়। এ সময় ভাতিজাদের ছুরিকাঘাত ও লাঠি পেটায় গুরুতর আহত হন হায়াতুন্নবী মোল্লা, তার বোন পান্না বেগম ও আব্দুর রহিম মোল্লা। আহতদের হাসপাতালে নিয়ে আসার সুযোগে হামলাকারীরা আব্দুর রহিমের ঘর, টিউবওয়েল ও টয়লেট ভাংচুর করে।
আহত হায়াতুন্নবী মোল্লার ভাই শামছুউদ্দিন মোল্লা বলেন, ভাতিজা আব্দুর রহিম মোল্লাকে বাঁচাতে গিয়ে এখন আমার ভাই মৃত্যু শয্যায়, তার মাথায় ও হাতে ছুরিকাঘাত করে গুরুতর আহত করা হয়েছে। এছাড়া আমার বোন পান্না ও ভাতিজাকে লাঠিদিয়ে পিটিয়ে আহত করে। আমরা হাসপাতালে চলে আসলে ভাতিজা আব্দুর রহিমের বাড়ীঘর ভাংচুর করে তারা। এ ব্যাপারে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন ভ‚ক্তভোগীরা।
এ বিষয়ে রায়কোট উত্তর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মাস্টার রফিকুল ইসলাম বলেন, আপনাদের মাধ্যমে জেনেছি আমি খবর নিয়ে দেখবো। ঘটনা সত্য হলে অপরাধীর শাস্তি হওয়া প্রয়োজন।

সংবাদটি শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন,

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত  দৈনিক বাংলাদেশ বার্তা  ২০২০-২১
এই ওয়েবসাইটের লেখা, ছবি, ভিডিও ব্যবহার বেআইনি

ওয়েবসাইট ডিজাইন প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট