1. mdrahim191420@gmail.com : Tazu Miazi : Tazu Miazi
  2. admin@www.bangladeshbartabd.com : Bangladeshbarta :
নাঙ্গলকোট প্রেসক্লাব প্রসঙ্গ! ভোগে নয়, ত্যাগেই প্রকৃত সুখ প্রমান করছেন- মাঈন উদ্দিন দুলাল - Bangladesh Barta
মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর ২০২১, ০৬:৩৭ অপরাহ্ন

নাঙ্গলকোট প্রেসক্লাব প্রসঙ্গ! ভোগে নয়, ত্যাগেই প্রকৃত সুখ প্রমান করছেন- মাঈন উদ্দিন দুলাল

মোহাম্মদ আলাউদ্দিন
  • প্রকাশিত: রবিবার, ১৮ জুলাই, ২০২১
  • ৬৮ বার পড়া হয়েছে
নাঙ্গলকোট প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি মজিবুর রহমান মোল্লা ও সাবেক সাধারণ সম্পাদক মাঈন উদ্দিন দুলাল। ২০১১ সালের মাঝামাঝি সময় থেকে ওনাদের সাথে আমার পরিচয়। তখন থেকেই ওনাদের প্রতি আমার অজস্র শ্রদ্ধা ছিলো। ২০১৩ সালে আমি নাঙ্গলকোট প্রেসক্লাবের সদস্যপদ লাভ করি। তখন থেকেই অনুধাবন করি ক্ষমতার মসনদে আজীবন টিকে থাকার জন্য ২০১৩ সাল থেকে ২০২১ সালের জুন পর্যন্ত দীর্ঘ সাড়ে ৮ বছরে কোনো নতুন সদস্য প্রেসক্লাবে অন্তর্ভুক্ত করেনি। এমন কি এই দীর্ঘ সময়ে নাঙ্গলকোট প্রেসক্লাবে কোন নির্বাচন কিংবা নতুন কমিটি গঠন করা হয়। এই দীর্ঘ সময়ে অনেকে নাঙ্গলকোট প্রেসক্লাবের সদস্য পদ পেতে ক্ষমতার মসনদে থাকা কতিপয় কর্তাব্যক্তিদের ধারে ধারে ঘুরেছেন। কিন্তু ক্ষমতার লোভে নতুন কোন সংবাদকর্মী আবেদনই তারা গ্রহণ করেনি। যার ফলশ্রুতিতে নাঙ্গলকোটে গঠিত হয়েছে ★ নাঙ্গলকোট সাংবাদিক সমিতি ★ নাঙ্গলকোট রিপোর্টার্স ইউনিটি ★ রিপোর্টার্স ক্লাব ★ একাধিক প্রেসক্লাব ও আরও অসংখ্য সাংবাদিক সংগঠন।
আর সেই ক্ষমতার লোভেই বিভক্তি এসেছে নাঙ্গলকোট প্রেসক্লাবে। পতন হয়েছে কতিপয় ক্ষমতা লোভী কর্তাব্যক্তিদের।
এক যুগের দীর্ঘ দায়িত্ব পালন করা নাঙ্গলকোট প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মাঈন উদ্দিন দুলাল। বৃহস্পতিবার নাঙ্গলকোট প্রেসক্লাবের সম্মেলনে সদস্যদের প্রস্তাবিত সভাপতি ছিলেন তিনি। কিন্তু তিনি তা গ্রহণ না করে সভাপতি পদটি এ.এফ.এম শোয়ায়েবকে উৎসর্গ করেন। ওনার এই উৎসর্গকে স্বাগত জানাই।
অন্যদিকে এক যুগের দীর্ঘ দায়িত্ব পালন করা নাঙ্গলকোট প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি মুজিবুর রহমান মোল্লা। ক্লাবের সদস্যরা যখন প্রতিনিয়তই নির্বাচন দাবি করছে, তখনই তিনি বুঝলেন- এবারের দফায় তার সভাপতি হওয়া প্রায় অসম্ভব। তখন তিনি সভাপতি পদ আকড়েঁ রাখতে সাইফুল ইসলাম শাহীন ভাইকে সঙ্গে নিয়ে ক্লাব ছেড়ে পালালেন। নেতৃত্ব দিয়ে খুলে নিলেন নাঙ্গলকোট প্রেসক্লাবের সাইনবোর্ড, ক্লাবে দিলেন তালা। আরো কয়েকজন সংবাদকর্মী ও কয়েকজন শিক্ষককে ম্যানেজ করে গঠন করলেন আরেকটি প্রেসক্লাব, সভাপতি হয়ে বসলেন সেই কমিটির মসনদে।
একজন ক্ষমতা আঁকড়ে ধরে হলেন ভিলেন, অন্যজন ক্ষমতা ছেড়ে বসলেন ভালোবাসার আসনে।
আমরা দ্বন্দ্ব চাইনা, চাই ঐক্য। হয়তো আবারও কখনো সম্মিলিত হবো একসাথে। সে প্রত্যাশাই করছি।

সংবাদটি শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন,

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত  দৈনিক বাংলাদেশ বার্তা  ২০২০-২১
এই ওয়েবসাইটের লেখা, ছবি, ভিডিও ব্যবহার বেআইনি

ওয়েবসাইট ডিজাইন প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট