1. azadnews77@gmail.com : Azad News : Azad News
  2. kazimasud01723@gmail.com : Kazi Masid : Kazi Masid
  3. live@www.bangladeshbartabd.com : news online : news online
  4. info@www.bangladeshbartabd.com : বাংলাদেশ বার্তা বিডি :
বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৫:৪৪ পূর্বাহ্ন

একদিনে ৭ হাজার শীতবস্ত্র বিতরণ করলেন বরুড়ার নতুন সাংসদ

সুজন মজুমদার
  • প্রকাশিত: শুক্রবার, ১৯ জানুয়ারী, ২০২৪

আজ (শুক্রবার) ১৯ জানুয়ারি সকাল ৮টা ৩০ মিনিটে আড্ডা উমেদিয়া উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে (কুমিল্লা-৮) বরুড়া আসনের নব নির্বাচিত সাংসদ আবু জাফর মোহাম্মদ শফি উদ্দিন শামীম তাঁর প্রতিষ্ঠিত এস কিউ ফাউন্ডেশনের অর্থায়নে দরিদ্র-অসহায় ও শীতার্ত মানুষের দুর্দশা লাঘবে ৭,২০০ জনের মাঝে কম্বল বিতরণ কর্মসূচির দ্বিতীয় দফা উদ্বোধন করেন। এ সময় আড্ডা ইউনিয়নের ৯ টি ওয়ার্ডের প্রতিটিতে ৫০ টি করে মোট ৪৫০ জন শীতার্ত মানুষের মাঝে কম্বল বিতরণ করা হয়। এর পর তিনি সারাদিন বরুড়ার আরও ১০ টি ইউনিয়ন পরিষদ এবং পৌরসভায় দুস্থ, অসহায় ও শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরণ করেন। ইউনিয়ন ও বিতরণের স্থান সমুহ যথাক্রমে আদ্রা ইউনিয়ন- পেরপেটি উচ্চবিদ্যালয়, ভাউকসার ইউনিয়ন – ভাউকসার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, গালিমপুর ইউনিয়ন – ঝাপুয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, শিলমুড়ি দক্ষিণ ইউনিয়ন- শিলমুড়ি ঈদগাহ মাঠ, শিলমুড়ি উত্তর ইউনিয়ন- সাহার পদুয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ভবানীপুর ইউনিয়ন- ভৈশখোলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, আগানগর ইউনিয়ন- ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়, খোশবাস দক্ষিণ ইউনিয়ন- ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়, বরুড়া পৌরসভা- বরুড়া বাজার, ঝলম ইউনিয়ন- ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয় ও চিতড্ডা ইউনিয়ন- চিতড্ডা মাদ্রাসা। এ নিয়ে দুই দফায় বরুড়া উপজেলার সব কটি ইউনিয়ন ও পৌরসভা মিলিয়ে মোট ৭,২০০ জন শীতার্ত, দুস্থ ও অসহায় মানুষের মাঝে কম্বল বিতরণ করা হয়েছে।

উল্লেখ্য সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়ে শপথ গ্রহণের পর গত ১৬ জানুয়ারি তিনি তাঁর নির্বাচনী এলাকায় প্রথম সফর করেন এবং দেশের চলমান শৈত্য প্রবাহের কারণে এলাকার অনেক দরিদ্র ও অসহায় মানুষ কষ্ট পাচ্ছে বিধায় উপজেলার মোট ১৪৪ টি ওয়ার্ডের প্রতিটিতে প্রথম দফায় ৫০ টি করে মোট ৭,২০০ টি কম্বল বিতরণ কার্যক্রম শুরু করেন। শফিউদ্দিন শামীম ও তাঁর পরিবার ৩০ বছরের বেশি সময় ধরে এলাকার অবকাঠামো উন্নয়ন, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, দারিদ্র্য বিমোচন, বেকারত্ব হ্রাস, আবাসন, কর্মসংস্থান সৃষ্টি ও জীবন মান উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছেন। তিনি এ যাবত নিজ অর্থায়নে অসংখ্য স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা ও মসজিদ নির্মাণ ও সংস্কার করেছেন। মনোনয়ন প্রাপ্তির পূর্বে তিনি আত্নকর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষ্যে উপজেলার ৬৫০ টি পরিবারের মাঝে অটো রিকশা, সেলাই মেশিন ও নগদ আর্থিক অনুদান প্রদান করেন। ভূমিহীন ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের জন্য তিনি বরুড়ায় গড়ে তুলেছেন এক অনন্য আবাসন যেখানে রয়েছে আধুনিক সকল নাগরিক সুবিধা সম্পন্ন দোতলা ফাউন্ডেশন বিশিষ্ট ৬৫ টি একতলা বাড়ি।

প্রতিটি ইউনিয়নে আয়োজিত অনুষ্ঠানে সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে তিনি সংসদ সদস্য হিসেবে তাঁকে নির্বাচিত করার জন্য এলাকাবাসীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ ও ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। তিনি বলেন সমাজ সেবা ও মানুষের পাশে দাড়ানো আমার মানবিক দ্বায়িত্ব। এতদিন আমি ব্যক্তিগত ও পারিবারিক উদ্যোগে সামাজিক দায়বদ্ধতার অংশ হিসেবে মানুষের জন্য কাজ করেছি, সংসদ সদস্য নির্বাচিত করে আপনারা আমাকে প্রাতিষ্ঠানিক ভাবে আপনাদের সেবক বানিয়েছেন। আমি জানিনা এই গুরু দায়িত্ব কতটা পালন করতে পারবো, তবে দায়িত্ব পালনে আমার নিষ্ঠা, সততা ও আন্তরিকতার কোন কমতি থাকবেনা। আমাদের এবারের কাজ হবে অনিয়ম, সন্ত্রাস, চাঁদাবাজি, নৈরাজ্য ও মাদকের বিরুদ্ধে রুখে দাড়ানো। আমি এ ব্যাপারে আপনাদের সকলের সহযোগিতা ও অংশ গ্রহণ প্রত্যাশা করছি। আমরা আত্নকর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষ্যে কর্মমূখী শিক্ষার উপর জোর দিব, দক্ষ জনশক্তি গড়ে তোলার লক্ষ্যে কারিগরি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান স্থাপন করবো। এলাকায় ব্যাবসাবান্ধব পরিবেশ তৈরি করতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবো। নতুন উদ্যোক্তা সৃষ্টির লক্ষ্যে ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের সম্পৃক্তি বাড়াবো। অবকাঠামো উন্নয়ন, রাস্তা- ঘাট, পুল-কালভার্ট, স্কুল -কলেজ ভবন নির্মাণ ও সংস্কার কাজ গুলোও ধারাবাহিক ভাবে চলতে থাকবে।

 

এসময় অন্যান্যের মাঝে উপস্থিত ছিলেন বরুড়া বরুড়া পৌরসভার সাবেক মেয়র মোঃ বাহাদুরুজ্জামান, এসকিউ ফাউন্ডেশনের সদস্য সচিব মোহাম্মদ তোফায়েল হোসেন,
আড্ডা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাকির হোসেন বাদল, আড্ডা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল হাই, সহ-সভাপতি মাষ্টার দেলোয়ার হোসেন, আদ্রা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রাকিবুল হাসান লিমন, আদ্রা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ এর সাবেক সভাপতি মঞ্জুর হোসেন মজুমদার, ভাউকসার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আহমেদ জামান মাসুদ, ভাউকসার ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নেতা এডভোকেট আনোয়ার হোসেন, ভাউকসার ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মেজবা উদ্দিন মজুমদার, গালিমপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ রবিউল আলম, গালিমপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নেতা বাচ্চু মিয়া, কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামী যুবলীগের সদস্য করিম মিয়াজী, শিলমুড়ী দঃ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হাজী ফারুক হোসেন ভূঁইয়া, শিলমুড়ী দঃ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নেতা মাষ্টার জাহাঙ্গীর হোসেন, শিলমুড়ী উত্তর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুস ছালাম, সাবেক চেয়ারম্যান আবু ইছহাক মিয়া, ভবানীপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নেতা মনিরুজ্জামান বাবুল, মামুনুর রশীদ ভূঁইয়া, ভবানীপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান খলিলুর রহমান, আগানগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাজহারুল ইসলাম মিঠু, খোশবাস দঃ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুর রব, বরুড়া পৌরসভা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সেলিম জাহাঙ্গীর, আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল মান্নান, ঝলম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. নুরুল ইসলাম, চিতড্ডা ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মনিরুজ্জামান জামাল, আওয়ামী লীগ নেতা রেজাউল করিম ইকবাল ও বরুড়া উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মোঃ ফরহাদ হোসেন প্রমুখ।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট